মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
পাকুন্দিয়ায় ব্যাডমিন্টন ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত পাকুন্দিয়া স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন অব কিশোরগঞ্জের শীতবস্ত্র বিতরণ মুজিববরর্ষে পাকুন্দিয়ায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের জমি ও গৃহ হস্তান্তর পালকিতে চড়ে বিয়ে করলেন আশরাফুল আনোয়ার রোজেন পাকুন্দিয়ায় ফ্রি ভেটেরিনারি মেডিক্যাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত পাকুন্দিয়াতে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী হা-ডু-ডু খেলা অনুষ্ঠিত পাকুন্দিয়ার কৃতি সন্তান কিশোরগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ উপ-সহকারী কৃষি অফিসার মাইক্রো বিশ্বজয় (ভর্তি পরীক্ষা সম্পর্কিত গল্প) কুমরীতে ঐতিহ্যবাহী দাড়িয়াবান্ধা খেলা অনুষ্ঠিত পাকুন্দিয়ায় ডিজিটাল ম্যারাথন দৌঁড় অনুষ্ঠিত

পাকুন্দিয়ায় ৩ বছরে হয়নি সাড়ে ৪ কিলোমিটার রাস্তার কাজ

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০
  • ২৪ Time View

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার নারান্দি ইউনিয়নের পুড়াবাড়ীয়া টু বাহরাম খানপাড়ার দেড় কিলোমিটার ও পাটুয়াভাঙ্গা ইউপির কুমরী ব্রীজ- মহিষবেড় থেকে গোয়াঘাটা ব্রীজ পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার রাস্তা প্রশস্ত ও উন্নতিকরণের কাজ দীর্ঘ তিন বছরেও শেষ হয়নি। এতে করে ধুলা ও খানাখন্দে ভোগান্তি পড়েছেন রাস্তার পাশের বসবাসকারী, ব্যবসায়ী, পথচারি এবং এই দুই রুটে চলাচলকারী যানবাহনের চালক ও যাত্রীরা। এদিকে কাজে অনিয়ম ও সময় মতো রাস্তার কাজ শেষ না হওয়ায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান টেকবে ইন্টারন্যাশনালের কাজের দরপত্র বাতিল করে দেয় স্হানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)।

ঢাকা- কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়ক সংলগ্ন পুড়াবাড়িয়া টু বাহরাম খানপাড়া রাস্তা এবং কুমরী ব্রীজ – মহিষবেড় থেকে গোয়াঘাটা ব্রীজ পর্যন্ত রাস্তা দুইটি রাস্তা জনগুরুত্বপূর্ণ। এই দুইটি রাস্তার মাধ্যমে সড়ক পথে গোয়াঘাটার সাথে পাকুন্দিয়ার এবং পুড়াবাড়ীয়ার সাথে পাকুন্দিয়া -কিশোরগঞ্জের একমাত্র যোগাযোগ পথ। এছাড়া রাস্ত‍া দুটির পাশ দিয়ে রয়েছে কৃষিজমি, স্কুল, মসজিদ, মাদরাসা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বসতবাড়ীসহ বিভিন্ন স্থাপনা। ২০১৭ সালের ৩০সেপ্টেম্বরে রাস্তা প্রশস্ত ও উন্নতিকরণের কাজ শুরু হওয়ার ৩৮ মাসেও শেষ হয়নি উন্নয়ন কাজ। এদিকে এখনও রাস্তার কিছু অংশে ফেলা হয়নি খোয়া। কার্পেটিং তো দুরের কথা।

কংক্রিট ফেলে বন্ধ রেখেছে রাস্তার কাজ, জন চলাচলে দূর্ভোগ

এছাড়া দীর্ঘদিন রাস্তা দুইটির কাজ বন্ধ থাকায় বর্ষায় রাস্তা ধসে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্ত। যে কারণে এরুটে চলাচলকারী ছোট যানবাহন থ্রী হুইলার, অটোরিকসা, ভ্যান ঝুকি নিয়ে চলাচল করছে এবং অনেক সময় দীর্ঘ পথ ঘুরে যেতে হচ্ছে তাদের গন্তব্যস্থলে।

পাকুন্দিয়া উপজেলা সূত্রে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) সুত্রে জানা গেছে, সড়ক প্রশস্ত ও উন্নতিকরণ প্রকল্পের আওতায় বাহরাম খানপাড়া টু পুড়াবাড়ীয়া মেলা বাজার পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার এবং পাটুয়াভাঙ্গা ইউপির কুমরী ব্রীজ- মহিষবেড় থেকে গোয়াঘাটা ব্রীজ পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার রাস্তার কাজ শুরু হয় ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর এবং কাজ দুটি পায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান টেকবে ইন্টারন্যাশনাল। কাজে অনিয়ম ও নির্দিষ্ট সময়ে কাজ শেষ করতে না পাড়ায় টেকবে ইন্টারন্যাশনালে কাজের দরপত্র বাতিল করা হয়েছে। নতুন করে দরপত্র আহব্বান করা হবে।

স্থানীয় এলাকাবাসীরা বলেন, দীর্ঘ ৩ বছর আগে বাহরাম খানপাড়া টু পুড়াবাড়ীয়া মেলা বাজার কুমরী ব্রীজ – মহিষবেড় থেকে গোয়াঘাটা ব্রীজ পর্যন্ত সাড়ে ৪ কিলোমিটার রাস্তার কাজ শুরু হয়েছে। কিন্তু এখনও সে কাজও শেষ হয়নি। জামতলা বাজার টু পুড়াবাড়ীয়া মেলা বাজারের রাস্তাটি ৬ মাস পরে কাজ শুরু করে এক বছর আগে নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। টিকাদার ও এলজিইডির অবহেলায় বাহরাম খানপাড়া টু পুড়াবাড়ীয়া মেলা বাজার এবং কুমরী ব্রীজ – মহিষবেড় থেকে গোয়াঘাটা ব্রীজ পর্যন্ত সাড়ে ৪ কিলোমিটার রাস্তার কাজ শেষ না হওয়াতে ধুলায় তাদের শ্বাসকষ্টসহ নানান সমস্যা হচ্ছে। এছাড়া ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ধুলাবালি পড়ে খারাপ অবস্থা তৈরি হয়েছে। দীর্ঘ পথ ঘুরে জেলা শহরে যেতে হচ্ছে। আসলে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান টেকবে ইন্টারন্যাশনাল ও সড়ক বিভাগের উদাসিনতায় দীর্ঘ তিন বছরেরও কাজ শেষ হয়নি। তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে রাস্তার কাজ সম্পূর্ণ দাবি জানান।
টেকবে ইন্টারন্যাশনাল এর স্বত্বাধিকারী হুমায়ুন কবির কে একাধিক বার মোবাইলে ম্যাসেজ এবং কল দিয়েও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
পাকুন্দিয়া উপজেলার স্হানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) প্রকৌশলী মোঃ হাবিবুল্লাহ বলেন, কাজে অনিয়ম ও নির্দিষ্ট সময়ে কাজ শেষ করতে না পাড়ায় টেকবে ইন্টারন্যাশনালে কাজের দরপত্র বাতিল করা হয়েছে। নতুন করে আবার দরপত্র আহব্বান করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© ২০১৬ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের কোনো কনটেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
কারিগরি সহযোগিতায়: Ashraf Ali Sohan
www.ashrafalisohan.com