শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০২:১৬ পূর্বাহ্ন

বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে আত্মহত্যা করলেন ধর্ষণ মামলার আসামী

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২০
  • ২২ Time View

বরিশাল কেন্দ্রীয় কারা হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইন ওয়ার্ডে এক ধর্ষণ মামলার আসামি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) দিবাগত রাত পৌনে ৩টার দিকে ওই ওয়ার্ডের শৌচাগারে এ ঘটনা ঘটে।আত্মহত্যাকারী ওই ব্যক্তির নাম মো. হানিফ খলিফা (৪০)।

হানিফ খলিফা জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার মধুকাঠী এলাকার আলী মো. খলিফার ছেলে ছিল। সে তার নিজের প্রতিবন্ধী কিশোরী কন্যাকে ধর্ষণের মামলায় গত ১ অক্টোবর থেকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে হাজতি হিসেবে ছিল।
বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারের ডেপুটি জেলার মো. ইব্রাহীম জানান, গতকাল শুক্রবার রাত পৌনে ৩টার দিকে হানিফ খলিফা কারাগারের কোয়ারেন্টাইন ওয়ার্ডের শৌচাগারে যায়। দীর্ঘক্ষণ শৌচাগার থেকে না বের হওয়ায় অন্যান্যদের সন্দেহ হয়। পরে দায়িত্বরতরা সেখানে প্রবেশ করে হানিফ খলিফাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়।

তাৎক্ষনিক তাকে উদ্ধার করে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক হানিফ খলিফাকে মৃত ঘোষণা করেন। ময়না তদন্তের জন্য তার লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হোবে।

এদিকে, কারাগারের অভ্যন্তরে হাজতি আসামির আত্মহত্যার ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে কারাগারের প্রধানরক্ষী আনছার আলী মন্ডল এবং অপর রক্ষী মো.কাওছারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারের সুপার প্রশান্ত কুমার বনিক।

উল্লেখ্য, নিজের প্রতিবন্ধী কিশোরী কন্যা (১৩)-কে ধর্ষনের অভিযোগে গত ৩০ সেপ্টেম্বর নগরীর বিমান বন্দর থানায় হানিফের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন তার স্ত্রী শিমুল বেগম।

গত ১ অক্টোবর স্থানীয় জনগণ তাকে আটক করে গণপিটুনী দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। পুলিশ তাকে আদালতে সোপর্দ করলে ওই দিনই তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন বিচারক।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© ২০১৬ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের কোনো কনটেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
কারিগরি সহযোগিতায়: Ashraf Ali Sohan
www.ashrafalisohan.com