সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:১৩ অপরাহ্ন

আজ বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

ডেস্ক রিপোর্ট
  • Update Time : বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৭ Time View

আজ ১ সেপ্টম্বর। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ১৯৭৮ সালের এই দিনে মেজর জিয়াউর রহমান ক্ষমতা বলয়ের মধ্য থেকে বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন।

দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় জিয়াউর রহমান বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি গঠন করেন। জাগদলকে বিএনপির সাথে একীভূত করা হয়। রাষ্ট্রপতি জিয়া এই দলের সমন্বয়ক ছিলেন এবং এই দলের প্রথম চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী এর প্রথম মহাসচিব ছিলেন। জিয়ার এই দলে বাম, ডান, মধ্যপন্থি সকল প্রকার লোক ছিলেন।

১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫টায় রমনা রেস্তোরাঁয় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আনুষ্ঠানিক ঘোষণাপত্র পাঠের মাধ্যমে বিএনপির যাত্রা শুরু। জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে তিনি ঘোষণাপত্র পাঠ ছাড়াও প্রায় দুই ঘণ্টা সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। সংবাদ সম্মেলনে প্রথমে ১৮ জন সদস্যের নাম এবং ১৯ সেপ্টেম্বর ওই ১৮ জনসহ ৭৬ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করেন জিয়াউর রহমান। বিএনপির প্রধান বৈশিষ্ট্য ছিল এই যে, দলটির প্রায় ৪৫ শতাংশ সদস্য ছিলেন তরুণ।

বিএনপি প্রতিষ্ঠার মাত্র তিন বছরের মাথায় ১৯৮১ সালে ৩০ মে সামরিক অভ্যুত্থানে নিহত হন জিয়াউর রহমান। এ ঘটনার মধ্য দিয়ে বিএনপির রাজনীতিতে জিয়া পর্বের সমাপ্তি ঘটে। কিছু দিনের মধ্যেই দলের হাল ধরেন খালেদা জিয়া। ১৯৮৪ সালের ১০ মে বিএনপির চেয়ারপারসন নির্বাচিত হন তিনি।

প্রতিষ্ঠার পর ১৯৭৯, ১৯৯১, ২০০১ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয় বিএনপি। ১৯৯৬ সালে ১৫ অনুষ্ঠিত একতরফা নির্বাচনেও বিজয়ী হয় দলটি। ২০০৭ সালের ১১ জানুয়ারির পর ক্ষমতার বাইরে রয়েছে বিএনপি।

টানা ১৩ বছর ক্ষমতার বাইরে বিএনপি। সর্বশেষ নির্বাচনে চরমভাবে বিপর্যস্ত দলটি। বিপুল জনসমর্থন থাকার পরও সঠিক সিদ্ধান্ত ও কৌশলের অভাবে কোনোভাবেই প্রতিপক্ষের সঙ্গে কুলিয়ে উঠতে পারছে না বিএনপি। নেতাকর্মীরা হতাশায় ভুগছেন। নেতৃত্বের সংকট, সময়কে অনুধাবনের অক্ষমতা, একগুঁয়েমি, বিভিন্ন পর্যায়ে যোগ্য ও দক্ষ নেতা নির্বাচনে ব্যর্থতার কারণেই দীর্ঘ সময় ধরে দলটি ক্ষমতার বাইরে। বিএনপি সরকার, সংসদ, রাজপথ কোথাও নেই। প্রশ্ন হচ্ছে রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপির অবস্থান এখন কোথায়? সে বিষয়ে জোরালো প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক অঙ্গনে।

দ্রুত বিএনপিকে ঘুরে দাঁড়ানোর পরামর্শ দিয়ে বিশ্লেষকরা বলছেন, নেতাকর্মীদের সঠিক ক্ষমতায়ন করে দলটির ভেতরে অধিকতর গণতান্ত্রিক ভাব আনতে হবে। অভ্যন্তরীণ ও বৈদেশিক নীতির পরিবর্তন, পরিমার্জন ও পরিশোধন করতে হবে। অভ্যন্তরীণ নীতি বলতে দলীয় কর্মসূচি প্রণয়ন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সম্পর্কের পুনর্মূল্যায়ন, বিভিন্ন দেশের সঙ্গে সম্পর্কের মাত্রা কী হবে তা নির্ধারণ করতে হবে। এর পাশাপাশি বিএনপির নিজস্ব বুদ্ধিবৃত্তিক কাঠামো দাঁড় করাতে হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© ২০১৬ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের কোনো কনটেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
কারিগরি সহযোগিতায়: Ashraf Ali Sohan
www.ashrafalisohan.com