পাকুন্দিয়ার সংবাদ

সুখিয়া ইউনিয়ন বিট পুলিশিং অফিসে নতুন ওসির মতবিনিময় সভা

সৈয়দুর রহসান সৈয়দ

পাকুন্দিয়া থানায় অভিযোগ, জিডি, পুলিশ ভ্যারিফিকেশনসহ যে কোনো সেবা নিতে কোন টাকা লাগবে না। থানায় সেবা নিতে আসা সকল ভুক্তভোগীকে পুলিশের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে। মাদক, জুয়া, কিশোর গ্যাং,ইয়াবা ক্রয়, বিক্রয়, সেবন নির্মূল সহ সুখিয়া ইউনিয়নবাসীর সকল নাগরিকের জান-মালের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণসহ এলাকার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ বদ্ধ পরিকর।

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া থানায় নতুন যোগদান করা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সারোয়ার জাহান এসব কথা বলেন। গতকাল মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) দুপুর ১:০০ ঘটিকায় সুখিয়া ইউনিয়ন পরিষদের হল রুমে বিট পুলিশিং অফিস কতৃক আয়োজিত স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এই অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

মতবিনিময় সভা সঞ্চালনা করেন পাকুন্দিয়া থানার এস.আই, মোঃ আঃ কদ্দুস। সভায় বক্তব্যে ওসি মো. সারোয়ার জাহান আরো বলেন, মাননীয় আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশক্রমে মাননীয় ঢাকা রেঞ্জ ডিআইজি স্যার ও মাননীয় পুলিশ সুপার স্যারের সিদ্ধান্ত মোতাবেক পুলিশকে জনগণের প্রকৃত সেবকে পরিণত করতে থানা হবে দালাল, টাউট ও হয়রানি মুক্ত।

থানায় সেবা নিতে আসা প্রতিটি ভুক্তভোগীকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে। এক্ষেত্রে কাউকে কোনো টাকা পয়সা দিতে হবেনা। স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগিতা চেয়ে বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, মাদক, জুয়া, কিশোর গ্যাং নির্মূলে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়ন করা হবে। পাকুন্দিয়া উপজেলার সকল নাগরিকের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ বিশৃঙ্খলাকারীদের প্রতিহত করা হবে। বিশৃঙ্খলাকারী কাউকে বিন্দুমাত্র ছাড় দেওয়া হবে না।
মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন, জনাব মোঃ আঃ হামিদ টিটু,চেয়ারম্যান ও সভাপতি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সুখিয়া ইউনিয়ন পরিষদ।সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, মাদক,জোয়া, কিশোরগ্যাং,ইয়াবা,ক্রয়,বিক্রয় ও সেবন কারীদের আইনের আওতায় এনে সুখিয়া ইউনিয়নকে একটি আদর্শ ইউনিয়নে রুপকার করতে নবাগত ওসির সহযোগীতা কামনা করেন।

এছাড়াও উক্ত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, মহসিন তালুকদার বাবুল, কেরামত আলী ও সুখিয়া ইউনিয়নের স্থানীয় নেত্রীবৃন্দ সহ এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন।

উল্ল্যেখ্য,গত শনিবার (৩ অক্টোবর) পাকুন্দিয়া থানায় অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিসেবে যোগদান করেন মো. সারোয়ার জাহান। তিনি বাজিতপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এর আগে তিনি পাকুন্দিয়া থানাতেও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
পাকুন্দিয়া এবং বাজিতপুর থানায় দায়িত্ব পালনকালে মো. সারোয়ার জাহান ১০ বার কিশোরগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক নির্বাচিত হন। এছাড়া তিনি তিনবার ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হিসেবে নির্বাচিত ও পুরস্কৃত হয়েছেন।

Nazmul
বার্তা সম্পাদক 01795995615
http://pakundiapratidin.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *