সাহিত্য

মো: আরমান হোসেনের কবিতা

ন্যায় বিচার

ভাবতে বড় কষ্ট হয় কোথায় আছি আজ,
দেশ বিদেশে হচ্ছে কি, শুনে আমি হতাশ।
ব্য দ্বীন কাফের মুশরিক, হয়ে ভাই ভাই
মুসলিম কে আঘাত করে” তারা মজা পাই।
নামধারী মুসলমান নেই তাদের ঈমান,
কাফেরের সাথে মিলে, তারাও করে অসম্মান।
দূরদূরান্তের কথা কি বলি, আছে স্বদেশে
ইচ্ছে মত বলে কথা, হোক ঠিক বা মিছে।
তাদেরই কথা সবি ঠিক, তারা মুক্তিকামী,
ধর্মের কথা বলে যারা, তারাই হয় জঙ্গি ।
মুসলিম যদি বলে দ্বীনি বিধান এর কথা,
প্রতিবাদের ঝড় হয়, নাহি পাই তার সঙ্গী।
মুসলিম যদি করে প্রতিবাদ, হয় শত বাঁধা,
নাস্তিক মুশরিক বেইমান কে দেয় পাহারা।
কোন ধর্মে যায় না পাওয়া নারীর সম্মান,
যাহ দিল দ্বীন ইসলাম, তবু তারা দিশেহারা।
তাদের জ্ঞানে ভরপুর, তবু জ্ঞানহীন কথা ”
ইসলাম কে ঘায়েল করতে, চলে এ প্রচেষ্টা।
যুগে যুগে এসেছিল তাদের মত রাজা বাদশা,
ফেরাউন নমরুদ কামান,দাবি করেছিল স্রষ্টা।
তাদের নেই আজ সম্মান, গালিতে ব্যবহার নাম”
করে সবি তাদের ঘৃণা, বসতবাড়ি হামাম খানা।
যাদের দিয়েছিল কষ্ট নির্যাতন জালা যন্ত্রণা,
তারা আজ শ্রেষ্ঠ মনি কূল, যা আর হবে না।
তোমরাও কর অপেক্ষা সামনে আসছে দিন,
মনে রেখো স্রষ্টা সুযোগ দেয়, ছাড় দেয় না।
সেই সুযোগে ভাবছ তোমারই রাজা বাদশা,
ইচ্ছে মত চলবে”বলবে কথা, করবে ব্যভিচার।
দুনিয়ার পর আখিরাত, যদিও নাহি বিশ্বাস ”
স্রষ্টা করিবে তখন, সবের সঠিক ন্যায় বিচার।

Nazmul
বার্তা সম্পাদক 01795995615
http://pakundiapratidin.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *